ফ্রিল্যান্সিং এবং বাস্তবতা নিজেই দেখে নিন

Please log in or register to like posts.
পোস্ট

ফ্রিল্যান্সিং হল ঘরে বসে অর্থউপার্জনের একটি ডিজিটাল উপায় বা মাধ্যম। নির্দিষ্ট বিষয়ে দক্ষ যে কেউ বাড়িতে বসে ইন্টারনেটের সাথে সংযুক্ত কম্পিউটারের সাথে কাজ করতে পারে। তবে কিছু সমস্যাও রয়েছে-

বর্তমানে বিশ্বে এখন অনেক ফ্রিল্যান্সার রয়েছে। নীচের চার্টটি দেখুন-এই চার্টটি ২০১৮ সালে ৬ টি দেশের এক্টিভ ফ্রিল্যান্সারদের ডেটা। এখানে আপনি দেখতে পাবেন যে গড়ে ১৪% একটিভ ফ্রিল্যান্সার রয়েছে এবং বাকিরা একটিভ নাথাকা অবস্থায়। সম্ভবত তারা কাজ করার জন্য যথেষ্ট দক্ষ নয়। বর্তমানে ফ্রিল্যান্সারদের সংখ্যা প্রায় দ্বিগুণ হয়ে গেছে। ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে এখন অনেকগুলি নিষ্ক্রিয় বা নস্ট অ্যাকাউন্ট রয়েছে যার কারণে অনেক মার্কেটপ্লেস এখন নতুন অ্যাকাউন্ট খুলতে দিচ্ছে না। আবার কাজের সংখ্যাও এখন ফ্রিল্যান্সারের সংখ্যা থেকে অনেক কম।এখানে একটি কাজের জন্য অনেক বিড রয়েছে।কখনও কখনও দেখা যায় যে ১৮ ডলারের কাজে ২৫প বিড প্রস্তাবিত হয় যা অনেক বেশি।

ফ্রিল্যান্সিংয়ে খুব সাধারণ একটি বিষয় হলো, কেবলমাত্র দক্ষ এবং অভিজ্ঞ ব্যক্তিরাই কাজ পান। একইভাবে, অল্প বা মধ্যপন্থী দক্ষতা সম্পন্ন ফ্রিল্যান্সাররা কাজ পায় না, কারণ অনলাইন ফ্রিল্যান্সার মার্কেটপ্লেস বাস্তব জীবনের চাকরির চেয়ে অনেক বেশি কঠিন। প্রতিটি বিডের জন্য আপনাকে ক্লায়েন্টের সাথে একটি সাক্ষাত্কার দিতে হবে। অর্থাৎ বলা যায়, ফ্রিল্যান্সার বেকারদের সংখ্যাও দিন দিন বেড়েই চলেছে।

আমি এইসকল মোটামুটি দক্ষ ফ্রিল্যান্সারদের নিয়ে কথা বলছি যারা ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটগুলিতে অ্যাকাউন্ট খুলেন এবং সফলভাবে কাজ করতে পারেনা।তবে, কখনও কখনও কিছু অভিজ্ঞ ফ্রিল্যান্সাররাও বিভিন্ন কারণে কাজ পান না, যেমন মার্কেটপ্লেসের সদস্যরা, যারা কেবল তাদের প্রো ফ্রিল্যান্সারদের কাজ করার বিষয়ে যত্নশীল হন, তাই তারা প্রায়শই ক্লায়েন্টদের সাথে ভিডিও কল করে প্রো ফ্রিল্যান্সারদের হায়ার রাখেন- এটি আমার ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা।

এই ক্রমবর্ধমান ফ্রিল্যান্সার এবং মার্কেটপ্লেসগুলি ফ্রিল্যান্সিং কাজের বাজার মূল্য হ্রাস করছে, অনেক সময় ফ্রিল্যান্সাররা তাদের কাজের উপযুক্ত বেতনও পান না। এবং অনেক নতুন ফ্রিল্যান্সার বর্তমান বাজারদরের চেয়ে কম অর্থের সাথে একটি কাজের জন্য বিড করে, যার ফলে কাজের ব্যয়ও কম হয়।

আবার আপনাকে সারাদিন অনলাইনে থাকতে হবে, আপনার ক্লায়েন্টের নির্দিষ্ট সময় যদি আপনার থেকে আলাদা হয় আপনি ঘুমাতে পারবেন না, কারণ আপনার যোগাযোগ রাখা এবং আপ টু ডেট থাকা আপনার জন্য গুরুত্বপূর্ণ।

আপনি যদি আর্টিকেল লেখক হন তবে ভাল কাজ পেতে আপনাকে বিভিন্ন পরীক্ষার মুখোমুখি হতে হবে এবং কয়েকটি শংসাপত্র সংগ্রহ রাখতে হবে। আপনার কাজের নমুনাগুলি আপনার ক্লায়েন্টদের কাছে দেখানোর জন্য আপনার অবশ্যই একটি ব্লগ থাকতে হবে। যেহেতু ক্লায়েন্টরা এখন অনেক বেশি কঠোর এবং আপনার কাজের ডেমু না থাকলে তারা আপনাকে বেছে নেবে না। সুতরাং ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে চাকরি পেতে কোনও পেশাদার ব্লগ বা একগুচ্ছ কাজের নমুনা তৈরি করা শুরু করুন। আপনি একটি নতুন ওয়েবসাইট তৈরি করার ধারণা পেতে এবং লেখা শুরু করতে আমাদের সাইটটি ঘুরে দেখতে পারেন।

কিছু ক্লায়েন্ট আপনাকে প্রথমে একটি নমুনা লিখতে বলবে, তারা আপনার পূর্ববর্তী নমুনার বিষয়ে চিন্তা করে না।

এছাড়াও অনেকগুলি বিষয় আলোচনা করার আছে। পরিস্থিতি অনুসারে সমস্ত পয়েন্ট ক্রমানুসারে পোস্ট করা হবে। আপডেট পেতে, আমাদের মেম্বারশীপে একাউন্ট করে যুক্ত থাকুন।

Reactions

0
0
0
0
0
0
Already reacted for this post.

কেউ পছন্দ করেনি!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *