Dark Mode
  • Sunday, 13 June 2021
আনুষ্ঠানিকভাবে হারমোনিওএস  চালু করলো হুয়াওয়ে

আনুষ্ঠানিকভাবে হারমোনিওএস চালু করলো হুয়াওয়ে

হুয়াওয়ে তাদের মালিকানাধীন হারমোনি অপারেটিং সিস্টেম HarmonyOS (হারমোনিওএস) স্মার্টফোনের জন্য অফিসিয়ালি চালু করেছে।

 

এবং সংস্থাটি হ্যান্ডসেট ব্যবসায়কে আটকে থাকা মার্কিন নিষেধাজ্ঞা থেকে সেরে উঠছে।

হুয়াওয়ে বুধবার সন্ধ্যা থেকে তাদের স্মার্টফোনগুলির মধ্যে কয়েকটি নির্দিষ্ট মডেলগুলিতে হারমোনিওস (HarmonyOS) চালু করছে, যা ব্যবহারকারীদের গুগলের অ্যান্ড্রয়েড প্ল্যাটফর্মের উপর ভিত্তি করে বর্তমান অপারেটিং সিস্টেম থেকে স্যুইচ করার সুযোগ দেবে। 

নির্দিষ্ট মডেলগুলি হচ্ছে,

HUAWEI Mate 40 Series and HUAWEI Mate X2, the HUAWEI WATCH 3 Series, and the HUAWEI MatePad Pro.

হারমোনিওএস (HarmonyOS) রিলিজ হওয়াতে এই সংস্থাটি আর অ্যান্ড্রয়েডের উপর পুরোপুরি নির্ভরশীল হবে না।

 মার্কিন নিষেধাজ্ঞা- আলফায়েট ইনক- গুগলকে নতুন কোন হুয়াওয়ে ফোন মডেলে প্রযুক্তিগত সহায়তা প্রদান এবং সকল পরিষেবা থেকে নিষিদ্ধ করে ছিল, যা বেশিরভাগ অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন ভিত্তিক, গুগল মোবাইল পরিষেবাগুলিতে অ্যাক্সেস থেকে নিষিদ্ধ হয়েছিল।

বর্তমানে huawei তাদের রিলিজ হওয়া হুয়াওয়ে হারমনিওস (HarmonyOS) কে ‘ইন্টারনেট-অফ-থিংস’ প্ল্যাটফর্ম হিসাবে বলছেন। যার লক্ষ্য ল্যাপটপ, স্মার্টওয়াচস, গাড়ি এবং অ্যাপ্লিকেশনগুলির মতো অন্যান্য ডিভাইসগুলি পরিচালনা এবং সংযুক্ত করা।

হুয়াওয়ে বছরের শেষ নাগাদ ২০০ মিলিয়ন স্মার্টফোন এবং ১০০ মিলিয়ন অন্যান স্মার্ট ডিভাইসে রোল আউট করার লক্ষ্য নিয়েছে। হুয়াওয়ে গ্রাহক ব্যবসায়িক গ্রুপের সফটওয়্যার বিভাগের সভাপতি ওয়াং চেঙ্গলু বলেছেন, তিনি ২০১৬ সাল থেকে (HarmonyOS) হারমোনিওসকে রিলিজ করার জন্য নেতৃত্ব দিয়েছেন।

২০১৯ সালে চীন ও আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে চলা বাণিজ্য যুদ্ধের প্রেক্ষাপটে ঠিক এই মর্মে তৎকালীন ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসন হুয়াওয়ে-কে নিষিদ্ধ ঘোষণা করে। 

নিষেধাজ্ঞার ফলে হুয়াওয়ের হ্যান্ডসেট ব্যবসায় প্রচুর চাপের মুখে পড়েছিল। বর্তমানে বিশ্বের বৃহত্তম স্মার্টফোন প্রস্তুতকারক, হুয়াওয়ে এখন প্রথম ৩ দশমিক ৪ শতাংশ মার্কেট শেয়ারের সাথে বিশ্বব্যাপী ষষ্ঠ স্থানে রয়েছে।

তাছাড়া যানা যায়, সংস্থাটি হারমোনিওএস-এর সাথে স্মার্টফোনের বাইরেও অন্যান্য প্লাটফর্ম বা ডিভাইসের প্রতি নজর দিচ্ছেন। স্মার্টফোন বাজার মধ্যমান হয়ে যাওয়ায় এবং স্মার্টফোন মানুষের জীবনের প্রধানতম ডিভাইস হিসাবে ব্যবহার হচ্ছে। এই কারণ উল্লেখ করে ব্যবহারকারীদের জন্য আরও কয়েকটি প্ল্যাটফর্ম তৈরীর পরিকল্পনা করছে এই কোম্পানিটি।

ওয়াং বলেন বর্তমান অপারেটিং সিস্টেমগুলির সবচেয়ে বড় সমস্যা হলো, বর্তমানে যে সকল ডিভাইস আছে সেই ডিভাইসগুলি সহজেই সংযুক্ত করা যায় না" ব্যবহারকারীদের সংযোগ বা কানেক্টেড করতে আলাদা আলাদা অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করতে হয়। তবে HarmonyOS ডিভাইসগুলি সুপার ডিভাইস গঠনে সংযুক্ত রাখতে পারবে।

এটি মূলত একটি ফাইল সিস্টেম হিসাবে কাজ করবে।

সুতরাং এখন দেখা যাক, আইফোন এবং এন্ড্রয়েড কে কতটা টেক্কা দিতে পারে এই (HarmonyOS) নামক অপারেটিং সিস্টেম।

comment / Reply From

archive

please_select_a_date